ব্লগবিডি.কম https://www.vlogbd.com/2022/08/magura-district.html

মাগুরা জেলার দর্শনীয় স্থান সমূহ


Magura District বাংলাদেশের,খুলনা বিভাগের অন্যতম প্রশাসনিক অঞ্চল।মাগুরা জেলা বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ জেলা।

Magura District বাংলাদেশের,খুলনা বিভাগের অন্যতম প্রশাসনিক অঞ্চল।মাগুরা জেলা বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ জেলা।  মাগুরা জেলার পার্ক নড়াইল জেলার দর্শনীয় স্থান সমূহ মাগুরার বিখ্যাত খাবার মাগুরা জেলার বিখ্যাত ব্যক্তি চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনীয় স্থান কুষ্টিয়া জেল    মাগুরা জেলার ইতিহাস,মুগল যুগে,মাগুরা জেলা সুন্দরবনের পাশাপাশি হওয়ায় এখানে জলদস্যুদের উৎপাত বেশি ছিল।কুমার নদী ও নবগঙ্গা নদীর তীরে জলদস্যুরাআখড়া।জলদস্যুরা বর্গীদের মত আচরণ করত।"ছেলে ঘুমালো পাড়া জুড়ালো বর্গী এলো দেশে" সে সময়ের প্রকৃত চিত্রই তুলে ধরেছে।এই লেখনীর মাধ্যমে।১৮৫৬-১৮৬০ সালে হাজরাপুরে নীলকুঠিকে কেন্দ্র করে নীল অভ্যুত্থান হয়।মাগুরার বরই,আমতলা নাহাটি ব্যাপক নীল চাষের নির্দশন পাওয়া যায়।  মহান মুক্তিযুদ্ধে মাগুরা জেলার অবদান অপরিসীম ১৬টি ফ্রন্ট এক সাথে যুক্ত হয়ে পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর সাথে তুমুল যুদ্ধ শুরু করেন।পাকিস্তান বাহিনীর সাথে মোকাবেলা করতে গিয়ে অনেক মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাৎ বরন করেন।  মাগুরা জেলার ঐতিহ্যবাহী,বাবুখালী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা মেলা প্রতি বছর ১৬ই   মাঘ অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে,ঘোড়াদৌড় প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছিল ১৮৯৮সালে আজও চলমান,  প্রতিবছর ৩দিন ব্যাপী মেলার আয়োজন হয়ে থাকে।   মাগুরা জেলার সংস্কৃতির চর্চার জন্য বিখ্যাত,এখানে জারিগান,সারিগান বিভিন্ন ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্টান অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।  মাগুরা জেলার প্রধান নদ-নদী,গড়াই,নবগঙ্গা,ফটকি,হানু,আলমখালি,মধুমতি,  মুচিখালি,মরাকুমার নদ,চিত্রা নদ,ভৈরব নদ,সিরাজপুর হাওর নদী,বেগবতী নদী।  মাগুরা জেলার দর্শনীয় স্থান,মাগুরা জেলায় বেশ কিছু চিত্রাকর্ষক ও ঐতিহ্যবাহী   দর্শনীয় স্থান রয়েছে, উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান গুলো হল।  গড়াই সেতু  কবি ফররুক আহমেদের বাসস্থান  রাজা সীতারাম প্রাসাদ দূর্গ  শ্রীলুর জমিদারবাড়ি  তালখড়ি জমিদার বাড়ি  সিদ্বেশ্বরী মঠ


মাগুরা জেলার ইতিহাস,মুগল যুগে,মাগুরা জেলা সুন্দরবনের পাশাপাশি হওয়ায় এখানে জলদস্যুদের উৎপাত বেশি ছিল।কুমার নদী ও নবগঙ্গা নদীর তীরে জলদস্যুরাআখড়া।জলদস্যুরা বর্গীদের মত আচরণ করত।"ছেলে ঘুমালো পাড়া জুড়ালো বর্গী এলো দেশে" সে সময়ের প্রকৃত চিত্রই তুলে ধরেছে।এই লেখনীর মাধ্যমে।১৮৫৬-১৮৬০ সালে হাজরাপুরে নীলকুঠিকে কেন্দ্র করে নীল অভ্যুত্থান হয়।মাগুরার বরই,আমতলা নাহাটি ব্যাপক নীল চাষের নির্দশন পাওয়া যায়।
মহান মুক্তিযুদ্ধে মাগুরা জেলার অবদান অপরিসীম ১৬টি ফ্রন্ট এক সাথে যুক্ত হয়ে পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর সাথে তুমুল যুদ্ধ শুরু করেন।পাকিস্তান বাহিনীর সাথে মোকাবেলা করতে গিয়ে অনেক মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাৎ বরন করেন।
মাগুরা জেলার ঐতিহ্যবাহী,বাবুখালী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা মেলা প্রতি বছর ১৬ই 
মাঘ অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে,ঘোড়াদৌড় প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছিল ১৮৯৮সালে আজও চলমান,
প্রতিবছর ৩দিন ব্যাপী মেলার আয়োজন হয়ে থাকে।
 মাগুরা জেলার সংস্কৃতির চর্চার জন্য বিখ্যাত,এখানে জারিগান,সারিগান বিভিন্ন ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্টান অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে

মাগুরা জেলার প্রধান নদ-নদী,গড়াই,নবগঙ্গা,ফটকি,হানু,আলমখালি,মধুমতি,
মুচিখালি,মরাকুমার নদ,চিত্রা নদ,ভৈরব নদ,সিরাজপুর হাওর নদী,বেগবতী নদী।
মাগুরা জেলার দর্শনীয় স্থান,মাগুরা জেলায় বেশ কিছু চিত্রাকর্ষক ও ঐতিহ্যবাহী 
দর্শনীয় স্থান রয়েছে, উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান গুলো হল।
গড়াই সেতু
কবি ফররুক আহমেদের বাসস্থান
রাজা সীতারাম প্রাসাদ দূর্গ
শ্রীলুর জমিদারবাড়ি
তালখড়ি জমিদার বাড়ি
সিদ্বেশ্বরী মঠ

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?