ব্লগবিডি.কম https://www.vlogbd.com/2022/08/nowgong-district.html

নওগাঁ জেলার ইতিহাস,দর্শনীয় স্থান


Naogaon District রাজশাহী বিভাগের অন্যতম একটি প্রশাসনিক অঞ্চল।নওগাঁ বৃহত্তর বরেন্দ্র ভূমির অংশ,বাংলাদেশেরউত্তর-পশ্চিমভাগে বাংলাদেশ ভারত আন্তর্জাতিক সীমারেখা সংলগ্ন।নওগাঁ জেলা,অসংখ্য ছোট ছোট নদীর লীলাক্ষেত্র,আত্রাইনদীর তীরবর্তী এলাকায় নদী বন্দর ঘিরে নতুন যে গ্রাম গড়ে উঠেছে,কালক্রমে গ্রামটি নওগাঁ জেলায় রুপান্তরিত হয়।

Naogaon District রাজশাহী বিভাগের অন্যতম একটি প্রশাসনিক অঞ্চল।নওগাঁ বৃহত্তর বরেন্দ্র ভূমির অংশ,বাংলাদেশেরউত্তর-পশ্চিমভাগে বাংলাদেশ ভারত আন্তর্জাতিক সীমারেখা সংলগ্ন।নওগাঁ জেলা,অসংখ্য ছোট ছোট নদীর লীলাক্ষেত্র,আত্রাইনদীর তীরবর্তী এলাকায় নদী বন্দর ঘিরে নতুন যে গ্রাম গড়ে উঠেছে,কালক্রমে গ্রামটি নওগাঁ জেলায় রুপান্তরিত হয়।      নওগাঁ জেলার দর্শনীয় স্থান,নওগাঁ জেলায় বেশ কয়েকটি দর্শনীয় স্থান ও প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপনা রয়েছে,  উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থানের সৌন্দর্য উপভোগ করতে”বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা থেকে পর্যটকেরা ছুটে আসে   নওগাঁ জেলার ভ্রমণ পিপাসুরা নওগাঁ জেলার দর্শনীয় স্থানের সৌন্দর্য উপভোগ করতে।তালেরগাছ সাম্রাজ্য,  পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার,কুসুম্বা মসজিদ,বলিহার রাজবাড়ি,বরেন্দ্র গার্ডেন শিশু পার্ক নিয়ামতপুর,  ভবানীপুর জমিদার বাড়ি,রঘুনাথ মন্দির,জগদ্দল বিহার,দিব্যক জয়স্তম্ভ,পতিসর রবীন্দ্র কাছারি বাড়ি,  ভিমের পান্টি,আলতাদীঘি জাতীয় উদ্যান,শালবন,জবই বিল,মাহীসন্তোষের মাজার,দিবরের দীঘি,  হলুদ বিহার,ইসলামগাঁথী প্রাচীন মসজিদ।  নওগাঁ জেলার ভৌগলিক সীমানা,উত্তরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, দক্ষিণে নাটোর ও রাজশাহী জেলা,   পূর্বে জয়পুরহাট ও বগুড়া জেলা, পশ্চিমে নবাবগঞ্জ জেলা।  নওগাঁ জেলার নামকরণের ইতিহাস,নওগাঁ শব্দের উৎপত্তি  ‘নও’ অর্থ (নতুন -ফরাসী শব্দ) ও গাঁ’ (গ্রাম) শব্দ দুটি হতে।   এই শব্দ দুটির অর্থ হল নতুন গ্রাম। নওগাঁ জেলার উপর দিয়ে বয়ে চলেছে অসংখ্য ছোট ছোট নদীর লীলাক্ষেত্র  এ অঞ্চল।   আত্রাই নদী তীরবর্তী এলাকায় নদী বন্দর এলাকা গড়ে উঠেছে।  নওগাঁ জেলার ইতিহাস,নওগাঁ জেলা ছিল রাজশাহী জেলার অন্তর্ভুক্ত,প্রথমে নওগাঁ ছিল একটি গ্রাম থেকে থানা,   থানা থেকে মহকুমা রুপ নেয়।নওগাঁ জেলা কালক্রমে জেলায় রুপান্তরিত হয়।নওগা জেলা প্রাচীন পৌন্ড্রবর্ধন  ভুক্ত অঞ্চল ছিল।নওগাঁ জেলা আবার বরেন্দ ভূমিরও একটি অংশ ছিল। নওগাঁ জেলার অধিবাসীরা ছিল   প্রাচীন পৌন্ড্র জাতীর বংশধর।নৃতাত্বিকদের মতে পুন্ড বিশ্বামিত্র বংশধর এবং বৈদিক যুগের মানুষ।  মহাভারত পুন্ড্রদের অন্ধ ঋষি দীর্ঘতমার ঔরসজাত বলি রাজার বংশধর বলে উল্লেখ করা হয়েছে।  আবার কারও মতে বাংলার আদিম পাদদর বংশধর রুপে পুন্ড্রদের বলা হয়, নওগাঁ জেলা প্রাচীন   জনগোষ্ঠীর আবাসস্থল বলা চলে।  নওগাঁ জেলার নদ-নদী,পুনভর্বা,আত্রাই,ছোট যমুনা,ফকিরণী নদী,শীব নদী, তুলশীগঙ্গা নদী,  নওগাঁ জেলার    ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠী,সাঁওতাল,মুন্ডা,ওঁরাও,মাহালী,বাঁশফোঁড়,কুর্মি মাহাতী,মাল পাহাড়ি।  এক নজরে নওগাঁ জেলা  নওগাঁ জেলার উপজেলা কয়টি?  ১১টি  নওগাঁ জেলার উপজেলা গুলোর নাম কী?  আত্রাই উপজেলা, নিয়ামতপুর উপজেলা, পত্নীতলা উপজেলা, পোরশা উপজেলা,   বদলগাছি উপজেলা,মহাদেবপুর উপজেলা, মান্দা উপজেলা, নওগাঁ সদর উপজেলা,  রানীনগর উপজেলা, সাপাহার উপজেলা।  নওগাঁ জেলার থানা কয়টি?  ১১টি।  নওগাঁ জেলার থানা গুলোর নাম কী?  আত্রাই থানা, রাণীনগর থানা, নওগাঁ থানা, বদলগাছী থানা, ধামুরহাট থানা, পত্নীতলা থানা,   সাপাহার থানা, পোরশা থানা, মহাদেবপুর থানা, মান্দা থানা, নিয়ামতপুর থানা।  নওগাঁ জেলার পৌরসভা কয়টি?  ৩টি   নওগাঁ জেলার পৌরসভা গুলোর নাম কী?  নওগাঁ পৌরসভা, নজিরপুর পৌরসভা,   ধামইরহাট পৌরসভা।  নওগাঁ জেলার সংসদীয় আসন কয়টি?  ৬টি সংসদীয় আসন আছে।  নওগাঁ জেলার সংসদীয় আসনের নাম কী?  নির্বাচনী এলাকা   জাতীয় সংসদের নির্বাচনী এলাকার নাম  ৪৬ নওগাঁ জেলা-১  পোরশা উপজেলা, সাপাহার উপজেলা ও নিয়ামতপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত।  ৪৭ নওগাঁ জেলা -২  পত্নীতলা উপজেলা ও ধামইরহাট উপজেলা নিয়ে গঠিত।  ৪৮ নওগাঁ জেলা -৩  বদলগাজী উপজেলা ও মহাদেবপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত।   ৪৯ নওগাঁ জেলা-৪  মান্দা উপজেলা নিয়ে গঠিত।   ৫০ নওগাঁ জেলা-৫  নওগাঁ সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত।   ৫১ নওগাঁ জেলা -৬  রাণীনগর উপজেলা ও আত্রাই উপজেলা নিয়ে গঠিত।   নওগা জেলার ইউনিয়ন কয়টি?  ৯৯টি  নওগাঁ জেলার মৌজা কয়টি?  ২৫৬৫টি।  নওগা জেলার গ্রাম কয়টি আছে?  ২৮৫৪টি গ্রাম আছে।  নওগাঁ জেলার প্রতি বর্গমাইলে কতজন বসবাস করে?  ৬৯৬জন।  নওগাঁ জেলার আয়তন কত?  ৩৪৩৫.৬৭ বর্গকিমি  নওগাঁ জেলার শিক্ষার হার কত  ৬২.৫২%  নওগাঁ জেলার জনসংখ্যা কত?  ২০১০সালের আদমশুমারী তথ্য অনুযায়ী ২৬০০১৫৮ জন।  নওগাঁ জেলার পোস্ট কোড কত?  নওগাঁ জেলার প্রশাসনিক কোড কত?   নওগাঁ জেলার অর্থনীতি কী,এ জেলার অর্থনীতি কৃষিপ্রাধান বরেন্দ্র অঞ্চলের  মাঠি উর্বর হওয়ায় এখানে কৃষি উৎপাদন বেশি হয়ে থাকে  প্রধান-শস্য,ধান,গম,পাট,সরিষা,আখ,ভুট্রা,  বেগুন,রসুন,পেয়াজ।  নওগাঁ জেলার প্রধান,ফল আম,  নওগাঁ জেলার রপ্তানি পণ্য কী,ধান,গম,পাট,সরিষা,আখ,ভুট্রা,  বেগুন,রসুন,পেয়াজ।  নওগাঁ জেলার লোকসংস্কৃতি সঙ্গীত,পল্লীগীতি, মুর্শিদী, ভাটিয়ালী, ভাওয়াইয়া ও মেয়েলী গান উল্লেখযোগ্য।  নওগাঁ জেলার উৎসব কী কী,চকড়পূজা,নবান্ন,হালখাতা,বেরাভাসন, পহেলা বৈশাখ।  নওগাঁ জেলার খেলাধুলা, হা-ডু-ডু, নৌকাবাইচ, দাড়িয়াবান্দা, লাঠিখেলা উল্লেখযোগ্য।


নওগাঁ জেলার দর্শনীয় স্থান,নওগাঁ জেলায় বেশ কয়েকটি দর্শনীয় স্থান ও প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপনা রয়েছে,
উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থানের সৌন্দর্য উপভোগ করতে”বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা থেকে পর্যটকেরা ছুটে আসে 
নওগাঁ জেলার ভ্রমণ পিপাসুরা নওগাঁ জেলার দর্শনীয় স্থানের সৌন্দর্য উপভোগ করতে।তালেরগাছ সাম্রাজ্য,
পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার,কুসুম্বা মসজিদ,বলিহার রাজবাড়ি,বরেন্দ্র গার্ডেন শিশু পার্ক নিয়ামতপুর,
ভবানীপুর জমিদার বাড়ি,রঘুনাথ মন্দির,জগদ্দল বিহার,দিব্যক জয়স্তম্ভ,পতিসর রবীন্দ্র কাছারি বাড়ি,
ভিমের পান্টি,আলতাদীঘি জাতীয় উদ্যান,শালবন,জবই বিল,মাহীসন্তোষের মাজার,দিবরের দীঘি,
হলুদ বিহার,ইসলামগাঁথী প্রাচীন মসজিদ।

নওগাঁ জেলার ভৌগলিক সীমানা,উত্তরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, দক্ষিণে নাটোর ও রাজশাহী জেলা, 
পূর্বে জয়পুরহাট ও বগুড়া জেলা, পশ্চিমে নবাবগঞ্জ জেলা।
নওগাঁ জেলার নামকরণের ইতিহাস,নওগাঁ শব্দের উৎপত্তি  ‘নও’ অর্থ (নতুন -ফরাসী শব্দ) ও গাঁ’ (গ্রাম) শব্দ দুটি হতে। 
এই শব্দ দুটির অর্থ হল নতুন গ্রাম। নওগাঁ জেলার উপর দিয়ে বয়ে চলেছে অসংখ্য ছোট ছোট নদীর লীলাক্ষেত্র  এ অঞ্চল।
 আত্রাই নদী তীরবর্তী এলাকায় নদী বন্দর এলাকা গড়ে উঠেছে।
নওগাঁ জেলার ইতিহাস,নওগাঁ জেলা ছিল রাজশাহী জেলার অন্তর্ভুক্ত,প্রথমে নওগাঁ ছিল একটি গ্রাম থেকে থানা, 
থানা থেকে মহকুমা রুপ নেয়।নওগাঁ জেলা কালক্রমে জেলায় রুপান্তরিত হয়।নওগা জেলা প্রাচীন পৌন্ড্রবর্ধন
ভুক্ত অঞ্চল ছিল।নওগাঁ জেলা আবার বরেন্দ ভূমিরও একটি অংশ ছিল। নওগাঁ জেলার অধিবাসীরা ছিল 
প্রাচীন পৌন্ড্র জাতীর বংশধর।নৃতাত্বিকদের মতে পুন্ড বিশ্বামিত্র বংশধর এবং বৈদিক যুগের মানুষ।
মহাভারত পুন্ড্রদের অন্ধ ঋষি দীর্ঘতমার ঔরসজাত বলি রাজার বংশধর বলে উল্লেখ করা হয়েছে।
আবার কারও মতে বাংলার আদিম পাদদর বংশধর রুপে পুন্ড্রদের বলা হয়, নওগাঁ জেলা প্রাচীন 
জনগোষ্ঠীর আবাসস্থল বলা চলে।

নওগাঁ জেলার নদ-নদী,পুনভর্বা,আত্রাই,ছোট যমুনা,ফকিরণী নদী,শীব নদী, তুলশীগঙ্গা নদী,
নওগাঁ জেলার    ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠী,সাঁওতাল,মুন্ডা,ওঁরাও,মাহালী,বাঁশফোঁড়,কুর্মি মাহাতী,মাল পাহাড়ি।
এক নজরে নওগাঁ জেলা
নওগাঁ জেলার উপজেলা কয়টি?
১১টি
নওগাঁ জেলার উপজেলা গুলোর নাম কী?
আত্রাই উপজেলা, নিয়ামতপুর উপজেলা, পত্নীতলা উপজেলা, পোরশা উপজেলা, 
বদলগাছি উপজেলা,মহাদেবপুর উপজেলা, মান্দা উপজেলা, নওগাঁ সদর উপজেলা,
রানীনগর উপজেলা, সাপাহার উপজেলা।
নওগাঁ জেলার থানা কয়টি?
১১টি।
নওগাঁ জেলার থানা গুলোর নাম কী?
আত্রাই থানা, রাণীনগর থানা, নওগাঁ থানা, বদলগাছী থানা, ধামুরহাট থানা, পত্নীতলা থানা, 
সাপাহার থানা, পোরশা থানা, মহাদেবপুর থানা, মান্দা থানা, নিয়ামতপুর থানা।
নওগাঁ জেলার পৌরসভা কয়টি?
৩টি 
নওগাঁ জেলার পৌরসভা গুলোর নাম কী?
নওগাঁ পৌরসভা, নজিরপুর পৌরসভা, 
ধামইরহাট পৌরসভা।
নওগাঁ জেলার সংসদীয় আসন কয়টি?
৬টি সংসদীয় আসন আছে।

নওগাঁ জেলার সংসদীয় আসনের নাম কী?

নির্বাচনী এলাকা 

জাতীয় সংসদের নির্বাচনী এলাকার নাম

৪৬ নওগাঁ জেলা-১

পোরশা উপজেলা, সাপাহার উপজেলা ও নিয়ামতপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত।

৪৭ নওগাঁ জেলা -২

পত্নীতলা উপজেলা ও ধামইরহাট উপজেলা নিয়ে গঠিত।

৪৮ নওগাঁ জেলা -৩

বদলগাজী উপজেলা ও মহাদেবপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত। 

৪৯ নওগাঁ জেলা-৪

মান্দা উপজেলা নিয়ে গঠিত। 

৫০ নওগাঁ জেলা-৫

নওগাঁ সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত। 

৫১ নওগাঁ জেলা -৬

রাণীনগর উপজেলা ও আত্রাই উপজেলা নিয়ে গঠিত। 

নওগা জেলার ইউনিয়ন কয়টি?
৯৯টি
নওগাঁ জেলার মৌজা কয়টি?
২৫৬৫টি।
নওগা জেলার গ্রাম কয়টি আছে?
২৮৫৪টি গ্রাম আছে।
নওগাঁ জেলার প্রতি বর্গমাইলে কতজন বসবাস করে?
৬৯৬জন।
নওগাঁ জেলার আয়তন কত?
৩৪৩৫.৬৭ বর্গকিমি
নওগাঁ জেলার শিক্ষার হার কত
৬২.৫২%
নওগাঁ জেলার জনসংখ্যা কত?
২০১০সালের আদমশুমারী তথ্য অনুযায়ী ২৬০০১৫৮ জন।
নওগাঁ জেলার পোস্ট কোড কত?
নওগাঁ জেলার প্রশাসনিক কোড কত?

নওগাঁ জেলার অর্থনীতি কী,এ জেলার অর্থনীতি কৃষিপ্রাধান বরেন্দ্র অঞ্চলের

মাঠি উর্বর হওয়ায় এখানে কৃষি উৎপাদন বেশি হয়ে থাকে

প্রধান-শস্য,ধান,গম,পাট,সরিষা,আখ,ভুট্রা,

বেগুন,রসুন,পেয়াজ।

নওগাঁ জেলার প্রধান,ফল আম,

নওগাঁ জেলার রপ্তানি পণ্য কী,ধান,গম,পাট,সরিষা,আখ,ভুট্রা,

বেগুন,রসুন,পেয়াজ।

নওগাঁ জেলার লোকসংস্কৃতি সঙ্গীত,পল্লীগীতি, মুর্শিদী, ভাটিয়ালী, ভাওয়াইয়া ও মেয়েলী গান উল্লেখযোগ্য।

নওগাঁ জেলার উৎসব কী কী,চকড়পূজা,নবান্ন,হালখাতা,বেরাভাসন, পহেলা বৈশাখ।

নওগাঁ জেলার খেলাধুলা, হা-ডু-ডু, নৌকাবাইচ, দাড়িয়াবান্দা, লাঠিখেলা উল্লেখযোগ্য।


পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?