ব্লগবিডি.কম https://www.vlogbd.com/2022/08/blog-post_73.html

গাইবান্ধা জেলার দর্শনীয় স্থান


গাইবান্ধা বাংলাদেশের রংপুর বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল।

গাইবান্ধা বাংলাদেশের রংপুর বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। গাইবান্দা জেলার ভৌগলিক সীমানা, পশ্চিমে রংপুর,দিনাজপুর ও জয়পুরহাট।পূর্বে জামালপুর জেলা,তিস্তা ও যমুনা নদী।উত্তরে কুড়িগ্রাম ও রংপুর জেলা, দক্ষিণে বগুড়া ও জয়পুরহাট জেলা অবস্থিত। গাইবান্ধা জেলার নামকরণের ইতিহাস,গাইবান্দার নামকরণের একটি ইতিহাস লোকমুখে প্রচলিত বিরাট রাজার নামে  একজন রাজা ছিল ওনার ৬০হাজার গাভী ছিল,এই গাভী যেখানে বাধাহত সেই স্থানের  নাম অনুসারে নামকরণ করা হয় গাইবান্ধা। গাইবান্ধা জেলার দর্শনীয় স্থান,বালাসীঘাট,রংপুর সুগার মিলস,গাইবান্ধা পৌরপার্ক,বর্ধনলুঠি,প্রাচীন মাস্তা মসজিদ,এসকেএস ইন,ফ্রেন্ডশীপ সেন্টার, ড্রীম সিটি পার্ক, সাদুল্লাপুরের নলডাঙ্গা জমিদার বাডি,জামালপুর শাহি মসজিদ। গাইবান্ধা জেলার প্রধান নদ-নদী,ব্রহ্মপুত্র নদ,তিস্তা নদী,যমুনা নদী, ঘাঘট নদী,বাঙালি নদী।


গাইবান্দা জেলার ভৌগলিক সীমানা, পশ্চিমে রংপুর,দিনাজপুর ও জয়পুরহাট।পূর্বে জামালপুর জেলা,তিস্তা ও যমুনা নদী।উত্তরে কুড়িগ্রাম ও রংপুর জেলা, দক্ষিণে বগুড়া ও জয়পুরহাট জেলা অবস্থিত।

গাইবান্ধা জেলার নামকরণের ইতিহাস,গাইবান্দার নামকরণের একটি ইতিহাস লোকমুখে প্রচলিত বিরাট রাজার নামে একজন রাজা ছিল ওনার ৬০হাজার গাভী ছিল,এই গাভী যেখানে বাধাহত সেই স্থানের 
নাম অনুসারে নামকরণ করা হয় গাইবান্ধা।

গাইবান্ধা জেলার দর্শনীয় স্থান,বালাসীঘাট,রংপুর সুগার মিলস,গাইবান্ধা পৌরপার্ক,বর্ধনলুঠি,প্রাচীন মাস্তা মসজিদ,এসকেএস ইন,ফ্রেন্ডশীপ সেন্টার, ড্রীম সিটি পার্ক, সাদুল্লাপুরের নলডাঙ্গা জমিদার বাডি,জামালপুর শাহি মসজিদ।
গাইবান্ধা জেলার প্রধান নদ-নদী,ব্রহ্মপুত্র নদ,তিস্তা নদী,যমুনা নদী, ঘাঘট নদী,বাঙালি নদী।


পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?