ব্লগবিডি.কম https://www.vlogbd.com/2022/07/blog-post_45.html

গাজীপুর জেলার দর্শনীয় স্থান, ইতিহাস ও ঐতিহ্য


গাজীপুর,বাংলাদেশের অন্যতম প্রশাসনিক অঞ্চল।ঢাকা বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ জেলা   গাজীপুর।মোগল,ব্রিটিশ,পাকিস্তান,আন্দোলনে গাজীপুরের রয়েছে আলাদা বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা,
১৯৭১সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ সংগঠিত হয়েছিল গাজীপুরে।
জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন ধরনের প্রতিষ্ঠান এখানে রয়েছে।

গাজীপুর,বাংলাদেশের অন্যতম প্রশাসনিক অঞ্চল।ঢাকা বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ জেলা   গাজীপুর।মোগল,ব্রিটিশ,পাকিস্তান,আন্দোলনে গাজীপুরের রয়েছে আলাদা বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা, ১৯৭১সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ সংগঠিত হয়েছিল গাজীপুরে। জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন ধরনের প্রতিষ্ঠান এখানে রয়েছে। গাজীপুর জেলার দর্শনীয় স্থানসমুহ,ভাওয়াল রাজবাড়ী, রথখোলা, ইন্দ্রাকপুর প্রাচীন রাজধানী, শ্রীপুর জগন্নাথ মন্দির, বড় জমিদার বাড়ি, মসজিদ ভাওয়াল জমিদারবাড়ী, বালিয়াতি জমিদার বাড়ি, ভাওয়াল রাজবাড়ী, দত্তপাড়া জাতীয় উদ্যান, আনসার একাডেমি এবং বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক, গাজীপুর নুহাশ পল্লী।সহ বেশ কিছু দর্শনীয় স্থান গাজিপুরে রয়েছে। গাজীপুর জেলার ভৌগলিক পরিচিতি,উত্তরে ময়মনসিংহ জেলা ও কিশোরগঞ্জ জেলা, দক্ষিণে ঢাকা জেলা ও নারায়নগঞ্জ জেলা,পূর্বে কিশোরগঞ্জ জেলা নরসিংদী জেলা  এবং পশ্চিমে ঢাকা জেলা টাঙ্গাইল জেলা অবস্থিত। গাজীপুর জেলার নামকরণের ইতিহাস,গাজীপুর জেলার নামকরণের উতিহাসবিদরা মনে  করেন মুহাম্মদ বিন  তুগলকের শাসনাকালে গাজী নামে কুস্তগীর এখানে থাকত। তার নাম  অনুসারে নামকরণ করা হয়েছে বলে অনেক ইতিহাস বিদের ধারণা।সম্রাট আকবরের  সেনাপতির ঈশা খাঁর ছেলে ফজল গাজীর নামে এই জনপদের গাজিপুরের নামকরণ করা হয়েছে। গাজীপুর কিসের জন্য বিখ্যাত,তৈরি পোশাকশিল্প, ইজতেমা,বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্ক,  বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় গুরুত্বপূর্ণ কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার,ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ তুলা গবেষণা ইনস্টিটিউট,টাকশাল বা টাকা তৈরির কারখানা,অস্ত্র তৈরির কারখানা, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউট,বাংলাদেশ সমরাস্ত্র কারখানা গাজীপুর জেলায় অবস্থিত। এক নজরে গাজীপুর জেলা গাজীপুর জেলায় কয়টি উপজেলা আছে? ৫টি উপজেলা রয়েছে। গাজীপুর জেলার উপজেলা সমুহের নাম কী? গাজীপুর জেলায় ৫টি উপজেলা রয়েছে উপজেলা সমুহের নাম গুলো হল, শ্রীপুর উপজেলা,কালিয়াকৈর উপজেলা,কালীগঞ্জ উপজেলা,কাপাসিয়া উপজেলা, গাজীপুর সদর উপজেলা।গাজীপুর সদর সিটি কর্পোরেশন অন্তর্ভুক্ত। গাজীপুর জেলার থানা কয়টি? ৭টি। গাজীপুর জেলার থানা সমুহের নাম কী? গাজীপুর জেলাদ ৭টি থানার নাম গুলো হল,কাপাসিয়া,কালিয়াকৈর,জয়দেবপুর, শ্রীপুর,কালীগঞ্জ,হাইওয়ে থানা-সালনা।এছাড়া চৌরাস্তা,কোনাবাড়ী,মীরেরবাজার, বোর্ডবাজার,মৌচাক,কাশিমপুর,টঙ্গী পূর্ব ও টঙ্গী পশ্চিম পুলিশ ফাঁড়ি আছে। গাজীপুর জেলায় পৌরসভা কয়টি আছে? ২টি পৌরসভা আছে। গাজীপুর জেলার পৌরসভার নাম সমূহ কী? গাজীপুর জেলায় ২টি পৌরসভা আছে,পৌরসভা গুলোর নাম হল, কালীগঞ্জ,শ্রীপুর ও কালিয়াকৈর। গাজীপুর জেলার সংসদীয় আসন কয়টি? ৫টি গাজীপুর জেলার সংসদীয় আসন ৫টি নাম নাম গুলো হল। জাতীয় সংসদীয় আসনের নাম  জাতীয় সংসদের নির্বাচনী এলাকার নাম ১৯৪গাজীপুর-১ কালিয়াকৈর উপজেলা এবং গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ০১হতে ১৮নং ওয়ার্ড সমূহ নিয়ে গঠিত। ১৯৫গাজীপুর-২ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ১৯হতে ৩৮নং ওয়ার্ড,গাজীপুর সিটির ৪৩হতে ৫৭নং ওয়ার্ড এবং গাজীপুর ক্যান্টনমেন্ট এলাকা।   ১৯৬গাজীপুর-৩ শ্রীপুর উপজেলা এবং গাজীপুর সদর উপজেলার মির্জাপুর,ভাউয়ালগর ও পুরুজালী ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। ১৯৭গাজীপুর-৪ কাপাসিয়া উপজেলা নিয়ে গঠিত। ১৯৮গাজীপুর-৫ কালীগঞ্জ উপজেলা,গাজীপুর সদর উপজেলার বাড়িয়া ইউনিয়ন এবং গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ৩৯,৪০,৪১ ও ৪২ ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত।  গাজীপুর জেলার নদ-নদী কয়টি? গাজীপুর জেলায় ১০টি নদ-নদী রয়েছে। গাজীপুর জেলার নদ-নদী গুলোর নাম কি? লবলং,ব্রহ্মপুত্র,পারুলী,সুতী,গোয়ালী,শীতলক্ষ্যা,বানার,তুরাগ,বালু,চিলাই। গাজীপুর জেলায় কয়টি  ইউনিয়ন আছে? মোট ৪৪টি ইউনিয়ন রয়েছে। গাজীপুর জেলার শিক্ষার হার কত? ৫৬.৪০% গাজীপুর জেলার জনসংখ্যা কত? ২১,৪৩,৪১১ জন ২০১১সালের আদমশুমারী র তথ্য অনুযায়ী। গাজীপুর জেলার আয়তন কত? ১,৭৭০.৫৪ বর্গকিমি। গাজীপুর জেলার প্রশাসনিক বিভাগের কোড কত? ৩০৩৩  গাজীপুর জেলার প্রতিষ্ঠা সন কত? ১৯৮৪ সালের ১মার্চ। গাজীপুর জেলার বিখ্যাত খাবার কী? কাঁঠাল,পেয়ারা। গাজীপুর কোন বিভাগে অবস্থিত? ঢাকা বিভাগে অবস্থিত। যাতায়াত গাজীপুর:গাজীপুর থেকে বাংলাদেশের যে কোন যায়গায় সড়ক পথ,বিমান, ট্রেইন দিয়ে খুব সহজে যাতায়াত করা যায়।রাজধানী ঢাকার পাশেই গাজীপুর জেলা অবস্থিত।


গাজীপুর জেলার দর্শনীয় স্থানসমুহ,ভাওয়াল রাজবাড়ী, রথখোলা, ইন্দ্রাকপুর প্রাচীন রাজধানী,
শ্রীপুর জগন্নাথ মন্দির, বড় জমিদার বাড়ি, মসজিদ ভাওয়াল জমিদারবাড়ী, বালিয়াতি জমিদার বাড়ি,
ভাওয়াল রাজবাড়ী, দত্তপাড়া জাতীয় উদ্যান, আনসার একাডেমি এবং বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক,
গাজীপুর নুহাশ পল্লী।সহ বেশ কিছু দর্শনীয় স্থান গাজিপুরে রয়েছে।

গাজীপুর জেলার ভৌগলিক পরিচিতি,উত্তরে ময়মনসিংহ জেলা ও কিশোরগঞ্জ জেলা,
দক্ষিণে ঢাকা জেলা ও নারায়নগঞ্জ জেলা,পূর্বে কিশোরগঞ্জ জেলা নরসিংদী জেলা 
এবং পশ্চিমে ঢাকা জেলা টাঙ্গাইল জেলা অবস্থিত।
গাজীপুর জেলার নামকরণের ইতিহাস,গাজীপুর জেলার নামকরণের উতিহাসবিদরা মনে 
করেন মুহাম্মদ বিন  তুগলকের শাসনাকালে গাজী নামে কুস্তগীর এখানে থাকত। তার নাম 
অনুসারে নামকরণ করা হয়েছে বলে অনেক ইতিহাস বিদের ধারণা।সম্রাট আকবরের 
সেনাপতির ঈশা খাঁর ছেলে ফজল গাজীর নামে এই জনপদের গাজিপুরের নামকরণ করা হয়েছে।
গাজীপুর কিসের জন্য বিখ্যাত,তৈরি পোশাকশিল্প, ইজতেমা,বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্ক, 
বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় গুরুত্বপূর্ণ কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার,ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট,
বাংলাদেশ তুলা গবেষণা ইনস্টিটিউট,টাকশাল বা টাকা তৈরির কারখানা,অস্ত্র তৈরির কারখানা,
বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউট,বাংলাদেশ সমরাস্ত্র কারখানা গাজীপুর জেলায় অবস্থিত।

এক নজরে গাজীপুর জেলা
গাজীপুর জেলায় কয়টি উপজেলা আছে?
৫টি উপজেলা রয়েছে।
গাজীপুর জেলার উপজেলা সমুহের নাম কী?
গাজীপুর জেলায় ৫টি উপজেলা রয়েছে উপজেলা সমুহের নাম গুলো হল,
শ্রীপুর উপজেলা,কালিয়াকৈর উপজেলা,কালীগঞ্জ উপজেলা,কাপাসিয়া উপজেলা,
গাজীপুর সদর উপজেলা।গাজীপুর সদর সিটি কর্পোরেশন অন্তর্ভুক্ত।
গাজীপুর জেলার থানা কয়টি?
৭টি।
গাজীপুর জেলার থানা সমুহের নাম কী?
গাজীপুর জেলাদ ৭টি থানার নাম গুলো হল,কাপাসিয়া,কালিয়াকৈর,জয়দেবপুর,
শ্রীপুর,কালীগঞ্জ,হাইওয়ে থানা-সালনা।এছাড়া চৌরাস্তা,কোনাবাড়ী,মীরেরবাজার,
বোর্ডবাজার,মৌচাক,কাশিমপুর,টঙ্গী পূর্ব ও টঙ্গী পশ্চিম পুলিশ ফাঁড়ি আছে।
গাজীপুর জেলায় পৌরসভা কয়টি আছে?
২টি পৌরসভা আছে।

গাজীপুর জেলার পৌরসভার নাম সমূহ কী?

গাজীপুর জেলায় ২টি পৌরসভা আছে,পৌরসভা গুলোর নাম হল,

কালীগঞ্জ,শ্রীপুর ও কালিয়াকৈর।

গাজীপুর জেলার সংসদীয় আসন কয়টি?

৫টি

গাজীপুর জেলার সংসদীয় আসন ৫টি নাম নাম গুলো হল।

জাতীয় সংসদীয় আসনের নাম 

জাতীয় সংসদের নির্বাচনী এলাকার নাম

১৯৪গাজীপুর-১

কালিয়াকৈর উপজেলা এবং গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ০১হতে ১৮নং ওয়ার্ড সমূহ নিয়ে গঠিত।

১৯৫গাজীপুর-২

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ১৯হতে ৩৮নং ওয়ার্ড,গাজীপুর সিটির ৪৩হতে ৫৭নং ওয়ার্ড এবং গাজীপুর ক্যান্টনমেন্ট এলাকা।


১৯৬গাজীপুর-৩

শ্রীপুর উপজেলা এবং গাজীপুর সদর উপজেলার মির্জাপুর,ভাউয়ালগর ও পুরুজালী ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত।

১৯৭গাজীপুর-৪

কাপাসিয়া উপজেলা নিয়ে গঠিত।

১৯৮গাজীপুর-৫

কালীগঞ্জ উপজেলা,গাজীপুর সদর উপজেলার বাড়িয়া ইউনিয়ন এবং গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ৩৯,৪০,৪১ ও ৪২ ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত।

গাজীপুর জেলার নদ-নদী কয়টি?

গাজীপুর জেলায় ১০টি নদ-নদী রয়েছে।

গাজীপুর জেলার নদ-নদী গুলোর নাম কি?

লবলং,ব্রহ্মপুত্র,পারুলী,সুতী,গোয়ালী,শীতলক্ষ্যা,বানার,তুরাগ,বালু,চিলাই।
গাজীপুর জেলায় কয়টি  ইউনিয়ন আছে?
মোট ৪৪টি ইউনিয়ন রয়েছে।
গাজীপুর জেলার শিক্ষার হার কত?
৫৬.৪০%
গাজীপুর জেলার জনসংখ্যা কত?
২১,৪৩,৪১১ জন ২০১১সালের আদমশুমারী র তথ্য অনুযায়ী।
গাজীপুর জেলার আয়তন কত?
১,৭৭০.৫৪ বর্গকিমি।
গাজীপুর জেলার প্রশাসনিক বিভাগের কোড কত?
৩০৩৩ 
গাজীপুর জেলার প্রতিষ্ঠা সন কত?
১৯৮৪ সালের ১মার্চ।
গাজীপুর জেলার বিখ্যাত খাবার কী?
কাঁঠাল,পেয়ারা।
গাজীপুর কোন বিভাগে অবস্থিত?
ঢাকা বিভাগে অবস্থিত।
যাতায়াত গাজীপুর:গাজীপুর থেকে বাংলাদেশের যে কোন যায়গায় সড়ক পথ,বিমান,
ট্রেইন দিয়ে খুব সহজে যাতায়াত করা যায়।রাজধানী ঢাকার পাশেই গাজীপুর জেলা অবস্থিত।
 

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?